10.8 C
Los Angeles
Monday, April 15, 2024

আইয়ুব বাচ্চু নেই, এলআরবির অন্যরা কে কোথায়

আইয়ুব বাচ্চু এবং তার স্বপ্নের ব্যান্ড এলআরবি...

শ্বাসকষ্টের রোগী এখন কেন এত বাড়ছে

রাজধানীর একটি গুরুত্বপূর্ণ আসাদগেটের কলেজের শিক্ষক, নীতা...

ইসরায়েলে অস্ত্র বিক্রি বন্ধের প্রস্তাব পাস, পক্ষে ভোট বাংলাদেশের

ইসরায়েলের অস্ত্র বিক্রি বন্ধের আহ্বান প্রস্তাবের প্রস্তাব...

গাজায় এখন আর স্বাভাবিক আকৃতির শিশু জন্ম নিচ্ছে না: জাতিসংঘের কর্মকর্তা

আন্তর্জাতিকগাজায় এখন আর স্বাভাবিক আকৃতির শিশু জন্ম নিচ্ছে না: জাতিসংঘের কর্মকর্তা

গাজা উপত্যকার মানবিক সংকটের সময়ে সেখানে প্রসব মা এবং নবজাতকদের জন্য অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক অবস্থা গড়েছে। হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন যে, উপত্যকার হাসপাতালগুলিতে অতিসন্তুষ্ট ও অস্বাভাবিক শিশুর জন্ম হচ্ছে। এছাড়াও, সন্তান জন্মের সময় মৃত্যুর ঘটনা দেখা যাচ্ছে। এমনকি প্রসবকালীন মা দের জন্য অস্ত্রোপচার করার জন্য প্রয়োজনীয় অস্ত্রোপচার (সিজারিয়ান সেকশন) ছাড়াই কিছু সময় আগে হয়নি।

গতকাল শুক্রবার, ফিলিস্তিনে জাতিসংঘের প্রতিনিধি ডমিনিক অ্যালেন বলেছিলেন এই অস্ত্রোপচার দুঃস্থ পরিস্থিতি নিয়ে। জেরুজালেম থেকে একটি ভিডিও সংবাদ সম্মেলনে অ্যালেন বলেছিলেন, ‘গাজা থেকে এইমাত্র বেশি পাঁচ লাখ নারী এবং কিশোরীর জন্য আতঙ্কের অনুভূতি আছে, বিশেষত যারা সন্তান জন্ম দিচ্ছে। প্রতিদিন ১৮০ নারী প্রসব করেন।’ অ্যালেন সেখানে গাজার উত্তরাঞ্চলে যে হাসপাতালগুলি রোগীদের মাতৃত্বকালীন সেবা দিচ্ছে, তাদের দেখেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, ‘চিকিৎসকরা এখন আর স্বাভাবিক আকৃতির নবজাতক দেখতে পাচ্ছেন না। তারা এখন আগের চেয়ে বেশি মৃত শিশুর জন্ম দেখছেন, আরও বেশি নবজাতকের মৃত্যু হচ্ছে। এর পেছনে অপুষ্টি, পানিশূন্যতা ও শারীরিক জটিলতার মতো বিষয়গুলি আংশিকভাবে দায়ী।’

ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘাতের প্রস্থানের আগে যে অবস্থা ছিল, তার তুলনায় এখন প্রসবকালীন জটিলতার হার দ্বিগুণ হয়েছে। এর সঙ্গে মা দের মানসিক চাপ, অপুষ্টি, এবং অবসন্ন অবস্থায় আরো ভূগছেন। স্বাস্থ্য সেবাকেন্দ্রগুলিতে প্রয়োজনীয় পণ্য অনুপাত নেই। প্রসবের অস্ত্রোপচারের জন্য প্রয়োজনীয় অ্যানেসথেসিয়া প্রয়োজন নেই।

অ্যালেন বলেছিলেন, ‘এটি এমন এক দুঃস্বপ্ন, যা মানবিক সংকটের চেয়ে বেশি কিছু। এটি এমন এক মানবতার সংকট, যাকে বিপর্য়য় বলা হয় না।’

ইউএনএফপিএর কর্মকর্তার আদায়, জাতিসংঘের জনসংখ্যা তহবিল থেকে গাজায় ধাত্রীদের জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণের সরবরাহের অনুমতি দেয় না ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ।

গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে হামলা চালালে ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী সশস্ত্র সংগঠন হামাস। ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষের তথ্য অনুসারে ওই হামলায় প্রায় ১ হাজার ১৬০ জন নিহত হয়েছে। জবাবে সেদিন থেকেই গাজায় হামলা শুরু করে ইসরায়েল। উপত্যকার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনুযায়ী এ হামলায় ৩১ হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন। তাঁদের বেশির ভাগই নারী ও শিশু।

Check out our other content

Check out other tags:

Most Popular Articles